Tuesday, May 21, 2024
32.3 C
Rajshahi
spot_img
হোমরাজশাহী বিভাগগুরুদাসপুরে বিয়ের দাবিতে কলেজ ছাত্রীর অনশন

গুরুদাসপুরে বিয়ের দাবিতে কলেজ ছাত্রীর অনশন

নাটোরের গুরুদাসপুরে কলেজ পড়ুয়া তরুনীর সাথে এক যুবকের দুবছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক। এর সুত্রধরে দুজনে একান্তে কাটিয়েছে সময়। হঠাৎ যুবকের অন্যত্র পাত্রী খোঁজার সংবাদে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করে করেজ ছাত্রী। গ্রাম্য বৈঠকে উভয় পক্ষের লিখিত সম্মতিতে দু-মাস পর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বাগদান (ইংগেজমেন্ট) করানো হয়।

সম্প্রতি যুবক নিকটবর্তী গ্রামে অন্য মেয়েকে বিয়ে করলে আরও একবার প্রতারিত হয় ওই তরুণী। বাধ্য হয়ে ওই প্রেমিকের বাড়িতে পুনরায় অনশন করে ওই শিক্ষার্থী। এমন ঘটনা ঘটেছে গুরুদাসপুর উপজেলার মশিন্দা বাহাদুর পাড়া গ্রামে। প্রেমিক সাকিবুল ইসলাম (২২) ওই এলাকার মৃত ওহাব মোল্লার ছোট ছেলে। তরুণী স্থানীয় একটি কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

এঘটনায় গা-ঢাকা দিয়েছে প্রেমিক সাকিবুল ইসলাম। বুধবার (১৭ এপ্রিল) সকালে সরেজমিনে গেলে এলাকাবাসী ও ভুক্তোভোগী ওই শিক্ষার্থী জানান, দু’বছর ধরে তাদের প্রেমের সম্পর্ক। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শাকিব তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এখন অন্যত্র বিয়ের সংবাদে স্ত্রীর স্বীকৃতিতে তিনি অনশন করছেন। ঘটনার আপোষ-মিমাংসার জন্য মঙ্গলবার রাতে বৈঠক হবার কথা থাকলেও তা হয়নি।

স্থানীয়রা জানান, গত ৯ মার্চ গ্রাম্য শালিস বৈঠকে দু-মাসপর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেয় শাকিবের পরিবার। কিন্তু তারা শুনেছেন শাকিব অন্যত্র বিয়ে করেছেন। মেয়েটি এখন কোথায় যাবে? তারা সাকিবুলের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী করেন।

সাকিবুলের বড় ভাই হাবিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ১১ এপ্রিল শাকিব বিয়ে করে শশুর বাড়িতে অবস্থান করছেন। অনশনের বিষয়টি তারা সামাজিক ভাবে সমাধানের চেষ্টা করছেন।

ভুক্তোভোগী ওই তরুনীর পিতা সাকাত প্রামানিক বলেন, গ্রাম্য বৈঠক ও উভয় পরিবারের সম্মতিতে তার মেয়েকে নাকফুল পরিয়ে স্ত্রী হিসাবে স্বীকৃতি দিয়ে শাকিব অন্যত্র বিয়ে করেছে। এমন প্রতারকের তিনি আইনানুগ বিচার দাবী করেন।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ উজ্জল হোসেন জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বাধীন জনপদের সাথেই থাকুন

সম্পর্কিত সংবাদ

স্বাস্থ্যকথা

- Advertisment -

ইসলাম