Tuesday, April 23, 2024
40.9 C
Rajshahi
spot_img
হোমবিনোদনআমার জগতে আমি রাজা, কাউকে নিয়ে ভাবার সময় নেই : হিরো আলম

আমার জগতে আমি রাজা, কাউকে নিয়ে ভাবার সময় নেই : হিরো আলম

আমার জগতে আমি রাজা, কাউকে নিয়ে ভাবার সময় নেই : হিরো আলম

বগুড়ার দুটি আসনের (বগুড়া-৪ ও বগুড়া-৬) উপনির্বাচনেই প্রার্থী হয়েছেন ফেসবুক ও ইউটিউবের ভাইরাল তারকা হিরো আলম। যদিও দুটি আসনেই তার প্রার্থিতা বাতিল করেছিল নির্বাচন কমিশন। পরে হাইকোর্টে রিট আবেদন করে মঙ্গলবার নিজের প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন হিরো আলম। স্বঘোষিত সেই হিরো বললেন, ‘আমার জগতে আমি রাজা।’

মঙ্গলবার হাইকোর্ট থেকে প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ার পর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন তিনি। তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, বগুড়ার দুই আসনেই ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী আছেন, তাদের ভিড়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে কতটুকু সুবিধা করতে পারবেন?

এর জবাবে হিরো আলম বলেন, ‘প্রত্যেক মানুষের নিজস্ব জগৎ থাকে, যার জগতে সে রাজা। আমার জগতে আমি রাজা। নির্বাচন করতে নেমেছি। মাঠে কে দাঁড়াল, কে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী, কাউকে নিয়ে ভাবার সময় নেই।’

হিরো আলম আরও বলেন, ‘বাধা পেরিয়ে লড়াই-সংগ্রাম ছাড়া আমি জীবনে কিছুই পাইনি। শত অসাধ্যকে সাহস আর দৃঢ় আত্মবিশ্বাস দিয়ে জয় করেছি। কোনো কিছুতেই হারতে শিখিনি। নির্বাচনেও হারব না। জয়ের জন্য লড়াই চালিয়ে যাব। বারবার হয়তো হারব। কিন্তু একদিন বিজয়ী হয়ে সংসদে যাবোই।’

তিনি এও বলেন, ‘নির্বাচনের দুই সপ্তাহও বাকি নেই। এত অল্প সময়ে দুই আসনে প্রায় সাত লাখ ভোটারের কাছে পৌঁছানো অনেক বড় চ্যালেঞ্জ হবে। সবার কাছে হয়তো সরাসরি পৌঁছাতে পারব না। গণসংযোগের পাশাপাশি মুঠোফোন ও তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে সক্রিয় প্রচারণা চালাব। নির্বাচনী এলাকা নিয়ে আমার উন্নয়ন পরিকল্পনা, মানুষের ভাগ্যোন্নয়ন নিয়ে আমার স্বপ্নের কথা ভোটারের কাছে তুলে ধরব।’

দলীয় সিদ্ধান্তে দুটি আসন থেকে বিএনপির সংসদ সদস্যরা পদত্যাগ করায় বগুড়া-৪ ও বগুড়া-৬ আসনে আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ভোট গ্রহণের জন্য তফসিল ঘোষণা করেছে ইসি। এই দুই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন হিরো আলম। দুটি আসনেই তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে লড়বেন।

সেই মতো বগুড়ার দুটি আসন থেকে মনোনয়নপত্র কেনেন হিরো আলম। কিন্তু দুটি আসনেই তার মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করে ইসি। কারণ হিসেবে বলা হয়, ‘হিরো আলমের ১ শতাংশ ভোটার তালিকায় গরমিল পাওয়া গেছে। সেখানে কয়েকজন ভোটারের সমর্থন না পাওয়ায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। আইনি লড়াইয়ে মঙ্গলবার তা ফিরে পান হিরো আলম।

এর আগে ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও একই ঘটনা ঘটেছিল। সে বারও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বগুড়া-৪ আসন থেকে মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন হিরো আলম। যাচাই-বাছাইয়ের পর সে সময়ও দুই দফায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। পরে উচ্চ আদালতে গিয়ে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছিলেন হিরো আলম।

এরপর ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে সিংহ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেন স্বঘোষিত এই হিরো। কিন্তু সংসদ সদস্য হওয়ার স্বপ্ন তার পূরণ হয়নি। নির্বাচনের দিন কারচুপি ও নির্বাচন কমিশনের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে তিনি ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছিলেন। হয়েছিলেন শারীরিক নির্যাতনের শিকারও। এবার তার ভাগ্যে কী আছে, সেটা দেখার অপেক্ষা।

স্বাধীন জনপদের সাথেই থাকুন

সম্পর্কিত সংবাদ

স্বাস্থ্যকথা

- Advertisment -

ইসলাম