Thursday, May 30, 2024
29.7 C
Rajshahi
spot_img
হোমরাজশাহী বিভাগকাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেলে মাথা দিয়ে ধোঁয়া উঠে গোলাম রাব্বানীর!

কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেলে মাথা দিয়ে ধোঁয়া উঠে গোলাম রাব্বানীর!

স্বাধীন জনপদ ডেস্কঃ নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার যোগিপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী গোলাম রাব্বানী। ১২ ধরে কাঁচা সুপারি দিয়ে তিনি পান খান। পান খেলেই ঘেমে যান তিনি। তবে গত ৫-৬ বছর ধরে শরীর ও মাথা ঘেমে যাওয়ার পাশাপাশি মাথা দিয়ে উঠছে ধোঁয়া। গরমের সময় মাথা দিয়ে ধোঁয়া ওঠা দেখা না গেলেও শীত কালে স্পষ্ট দেখা যায় এই ধোঁয়া। রাতের বেলায় আরও বেশি স্পষ্টভাবে দেখা যায়।

শীতের সময় কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খাওয়ার পর মাথায় ধোঁয়া ওঠা ‘অস্বাভাবিক’ কিছু নয় বলে মনে করছেন নাটোরের সিভিল সার্জন রোজী আরা খাতুন।

ডা. রোজী আরা খাতুন বলেন, তারা গোলাম রব্বানিকে ডেকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন। তার প্রেশার ও কোলেস্টেরল হাই আছে। কোনো শারীরিক সমস্যার কারণে এটা হচ্ছে না। একজন স্বাভাবিক মানুষও যদি কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খায় তার মাথা ঘোড়ে, শরীর ঘামে, মাথায় ধোঁয়াও ওঠে; কিন্তু এর ক্ষেত্রে সেটা দেখা যায় না।

শীতকালে কেউ যদি হাঁ কর করে তাহলেই ধোঁয়া বের হয় জানিয়ে ডা. রোজী বলেন, “উনার মাথায় ধোঁয়াটা শুধু শীতকালেই বের হয়, অন্য সময় বের হয় না। কাঁচা সুপারি খাওয়ায় উনার মেটাবলিজমটা হয়তো একটু বেশি হচ্ছে, যে কারণে একটু ধোঁয়া বের হতেই পারে। এটা স্বাভাবিক ঘটনা, অস্বাভাবিক কিছু না।”

ধোঁয়া ওঠার ব্যাপারটা ব্যক্তি বিশেষে কমবেশ হয় জানিয়ে তিনি বলেন, “গোলাম রব্বানির মাথায় ধোঁয়া উঠার চিত্রটা দৃশ্যমান, অন্যদেরটা দেখা যাচ্ছে না।”

শীত না থাকলে সেদিন গোলাম রব্বানীর মাথায় ঘাম হলেও ধোঁয়া ওঠে না।

সোমবার রাতে বাগাতিপাড়ার যোগীপুর বাজারে একটি পানের দোকানে গিয়ে অনেক লোকের ভিড় চোখে পড়ে। ভিড় ঠেলে এগোতেই দোকানের বেঞ্চে ঘর্মাক্ত অবস্থায় টুপি পরে বসে পান চিবাচ্ছিলেন গোলাম রব্বানী।

বাজারে উপস্থিত যোগীপাড়ার বেশ কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, রব্বানি যখন যোগীপাড়া বাজারে এসে কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খান, তখন প্রচণ্ড ঘামেন; আর মাথা দিয়ে ধোঁয়া বের হয়।

কেউ কেউ বলেন, ওইদিন শীত একটু কম থাকায় ধোঁয়া কম উঠছিল। আগের দিন শীত বেশি ছিল বলে বেশি ধোঁয়া বের হয়েছিল।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওই পান দোকানদার ও এলাকাবাসী স্মার্ট ফোন থেকে রোববারের (২৯ জানুয়ারি) কয়েকটি ভিডিও বের করে দেখান, যেখানে দেখা যায় অনেক মানুষের সামনে কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খাওয়ার পর রব্বানির মাথা থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছে।

যোগীপাড়া বাজারের পান দোকানদার মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, “রব্বানী সম্পর্কে আমার মামাতো ভাই। আমার পাশের গ্রামেই বাড়ি। আজ থেকে ছয়-সাত বছর আগে উনি প্রথম আমার দোকানে পান খাওয়ার পর দেখি উনার মাথা দিয়ে ব্যাপক ধোঁয়া বের হচ্ছে।

“এ বিষয়ে তার ব্যবসায়িক পার্টনারদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, ভয়ের কারণ নেই, শীতের দিনে পান খেলে এই অবস্থা হয়। শীত কম থাকলে ‘হালকা ধোঁয়া’ বের হয়।”

তার দোকানের বয়স ১৪ থেক ১৫ বছর জানিয়ে আশরাফুল বলেন, “উনি আমার নিয়মিত কাস্টমার। শীত আসলে আমি একই অবস্থা দেখি। উনি ময়মসলা দিয়ে পান খান। ধনিয়া, যাওন, কালোজিরা ছাড়া উনি জর্দা খান না। শীতের দিনে উনার বেশি পান কিনে খেতে হয় না। এলাকার লোকজন মাথা দিয়ে ধোঁয়া ওঠা দেখতে ৫-৬টা পান উনাকে কিনে খাওয়ান।”

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে গোলাম বব্বানি বলেন, শীত থাকলে একটা পান খাওয়ার পরেই মাথায় ধোঁয়া ওঠে। তিনি ১৪ থেকে ১৫ বছর ধরে পান খান। চার থেকে পাঁচ বছর ধরে তার মাথায় ধোঁয়া ওঠে। সাদা পান বা মশলা পান যেটাই খান ধোঁয়া ওঠে, জর্দা লাগে না।

“আজকে শীত নাই তাই বের হয়নি, শীত থাকলে ধোঁয়া বের হয়। গরমে শরীর শুধু ঘামে কিন্তু ধোঁয়া ওঠে না। কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খাওয়ার জন্য আমার শারীরিক কোনো সমস্যা হয় না। মাথাটা একটু গরম হয়, তাই মাথার চুলগুলো সব উঠে গেছে।”

পান স্বাদ লাগে, ভালো লাগে বলে খান; ধোঁয়া তোলার জন্য না, বলেন তিনি।  প্রতিদিন অন্তত ১৫ থেকে ২০ টা পান লাগে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শীতের দিনে অনেকেই ধোঁয়া দেখার জন্য ফ্রি পান খাওয়ান, তাছাড়া তিনি টাকা দিয়েও পান কিনে খান।  প্রতিদিন একরকম ধোঁয়া বের হয় না জানিয়ে তিনি বলেন, “একদিন একটু বেশি হয়, একদিন একটু কম হয়। কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেলে শরীরটা হিট হয়। আমার বাড়িতে দেড়শ থেকেই দুইশ সুপারি গাছ আছে। আমি সারাবছর কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খাই। এখন পর্যন্ত আমার শারীরিক সমস্যা হয়নি, তাই কোনো ডাক্তারের কাছে যাইনি।”

স্বাধীন জনপদের সাথেই থাকুন

সম্পর্কিত সংবাদ

স্বাস্থ্যকথা

- Advertisment -

ইসলাম