Tuesday, April 23, 2024
35 C
Rajshahi
spot_img
হোমরাজশাহী বিভাগঅমির দাবি, তার ফেনসিডিল সেবনের ভিডিওটি ‘সুপার এডিটিং’ করা (ভিডিও)

অমির দাবি, তার ফেনসিডিল সেবনের ভিডিওটি ‘সুপার এডিটিং’ করা (ভিডিও)

অমির দাবি, তার ফেনসিডিল সেবনের ভিডিওটি ‘সুপার এডিটিং’ করা (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ সম্প্রতি রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিবুল ইসলাম রানার একটি ফোন কলের কিছু অংশ ভাইরাল হয়। এতে শোনা যায়, তিনি এক নারী নেত্রীর কাছে অনৈতিক প্রস্তাব করছেন। ছড়িয়ে পড়া আরেক ভিডিওতে সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন অমিকে এক নেতার চেম্বারে বসে ফেনসিডিল পান করতে দেখা যায়।

এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে দেশজুড়ে চলছে সমালোচনা। বিভিন্ন গণমাধ্যমে জেলা ছাত্রলীগের শীর্ষ এই দুই নেতাবে শিবির-ছাত্রদলের বলেও প্রচার করেছে। এ নিয়ে রবিবার দুপুরে গণমাধ্যমের সামনে আসেন রানা ও অমি। রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করে তারা দাবি করেন, নিজ সংগঠনের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষই এসব ষড়যন্ত্র করছে।

সংবাদ সম্মেলনে আত্মপক্ষ সমর্থন করে রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন অমি বলেন, ‘কাটাখালী পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সামার ব্যক্তিগত চেম্বারে আমি গিয়েছিলাম। সেখানে ভাইরাল হওয়ার ভিডিওটিতে যে পানীয় দেখা গেছে সেটি ফেনসিডিল নয়, বরং স্পিড ছিল। যা সুপার এডিট করে ফেনসিডিল বানানো হয়েছে।’

নিজের বিরুদ্ধে উঠা দলীয় কর্মীদের মারধরের অভিযোগও আস্বীকার করেন অমি। তিনি দাবি করেন, ‘দলের ভেতর থেকেই পরিকল্পিতভাবে তাকে ও তার সভাপতি রানাকে জামায়াত-বিএনপি বানিয়ে অপপ্রচার করা হচ্ছে। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ তাদেরকে সবার সামনে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে।’

একই সংবাদ সম্মেলনে রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিবুল ইসলাম রানা দাবি করেন, ‘আমি কখনও শিবির বা ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলাম না। আমার নিজ সংগঠনের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষই এসব ষড়যন্ত্র করছে।’

তারা জানিয়েছেন, আনিত অভিযোগগুলো তদন্তের জন্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ কমিটি গঠন করেছে। কমিটির সদস্যরা নিরপেক্ষভাবে পুরো বিষয়টি তদন্ত করলেই সব বিষয় পরিষ্কার হয়ে যাবে। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সংবাদ সম্মেলনের পর অভিযোগ ও সংশ্লিষ্ট ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করে সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

স্বাধীন জনপদের সাথেই থাকুন

সম্পর্কিত সংবাদ

স্বাস্থ্যকথা

- Advertisment -

ইসলাম