Tuesday, May 21, 2024
31.7 C
Rajshahi
spot_img
হোমচট্টগ্রাম বিভাগ২৪ দেশের সেনা কর্মকর্তাদের ইন্দো-প্যাসিফিক আর্মি সেমিনার

২৪ দেশের সেনা কর্মকর্তাদের ইন্দো-প্যাসিফিক আর্মি সেমিনার

কক্সবাজারে ২৪টি দেশের উচ্চপদস্থ সেনা কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে ইন্দো-প্যাসিফিক আর্মি ম্যানেজমেন্ট সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ ও যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর প্যাসিফিক অঞ্চলের প্রধান জেনারেল চার্লস এ ফ্লিন উপস্থিত ছিলেন।

মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় কক্সবাজারের রয়্যাল টিউলিপ হোটেলে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং যুক্তরাষ্ট্রের আর্মি প্যাসিফিক যৌথভাবে সেমিনারটির আয়োজন করে।

এ দিন দুপুরে কর্মকর্তারা উখিয়ার কুতুপালং ৪ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। সেখানে তারা মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শরনার্থীদের দুঃখ-দুর্দশা ও মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর নির্যাতনের কথা শোনেন।

সেনা কর্মকর্তাদের কাছে রোহিঙ্গা প্রতিনিধিরা নিজ দেশে ফেরত যেতে আন্তর্জাতিক মহলের সহযোগিতা কামনা করেন। ক্যাম্পের মাঝি মোহাম্মদ ওসমান বলেন, আমরা তৃতীয় কোনো দেশ নয়, আমাদের দেশেই ফিরতে চাই। সেনা কর্মকর্তাদের আমরা জানিয়েছি আন্তর্জাতিক মহলের হস্তক্ষেপের মাধ্যমে আমাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনের পরিবেশ তৈরি করা হোক।

ইন্দো-প্যাসিফিক আর্মি ম্যানেজমেন্ট হলো অন্যতম প্রধান সেনা কর্মকাণ্ড, যা ইন্দো-প্যাসিফিক আঞ্চলিক স্থল বাহিনীর সিনিয়র সামরিক নেতৃত্বের জন্য শান্তি ও স্থিতিশীলতার বিষয়ে মতামত ও ধারণা বিনিময়ের একটি ফোরাম। আইপিএএমএস’র উদ্দেশ্য পারস্পরিক বোঝাপড়া, সংলাপ এবং বন্ধুত্বের মাধ্যমে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখা।

এছাড়াও সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী অন্যান্য সদস্যরা বলিষ্ঠ শান্তিরক্ষা মিশন ও এর করণীয় শীর্ষক ব্রেক আউট সেশন এবং জুনিয়র নেতৃবৃন্দ পেশাদারিত্বের ওপর পৃথক পৃথক আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন।

স্বাধীন জনপদের সাথেই থাকুন

সম্পর্কিত সংবাদ

স্বাস্থ্যকথা

- Advertisment -

ইসলাম